মঙ্গলবার,  রাত ৮:৪১  ♦  ২৩শে মে, ২০১৭ ইং, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ ( গ্রীষ্মকাল ), ২৭শে শাবান, ১৪৩৮ হিজরী  ♦
T4B Promotion
ওয়ার্ডপ্রেস টিপস
teleinfo24
  • 9 টি টিপস
About Author

সুপ্রিয় TiPS4BLOG কমিউনিটি, আমি teleinfo24.com থেকে একজন টেলিবার্তা বাহক বলছি। আপনি যে অপারেটর ব্যবহার করছেন তা কি আপনাকে সকল সুবিধা দিচ্ছে বা আপনি সেই সুবিধা সম্পর্কে অবগত আছেন? উত্তর চাইলে ভিজিট করুন
টেলিইনফো২৪.কম
বাংলাদেশী ফাস্ট আপডেটেড টেলিনিউজ পোর্টাল

৯ মাস ১২ দিন আগে
বিভাগ: এসইও নভে. 12, 2016  -  7:20:28 অপরাহ্ন (  ৬ মাস ১২ দিন  আগে  )

কিভাবে ইউটিউব ভিডিও এস ই ও করবেন এবং ভিউ বাড়াবেন।

অ-
অ+

টাইটেল দেখেই বুঝে গেছেন এইটা কেমন গুরুত্বপূর্ন। আপনার যেকোনো ভিডিও Rank করাতে হলে আপনাকে এস ই ও করতেই হবে। অনেকেই পেইড এস ই ও করে আবার অনেকেই ফ্রি বা আনপেইড। পেইড এস ই ও কম সময়ে যদি বেশি ভিউ চান অথবা আপনার সামর্থ্যে থাকলে করবেন কিন্তু যারা মূলত ভিডিও রেকর্ডিং করে থাকে অনেকের পক্ষেই সামর্থ্য থাকে না। তাদের জন্য এস ই ও এর কিছু আলাদা টার্মস শেখাবো সাথে বেসিক টাও ধরিয়ে দিব। অর্থ্যাৎ টিউটোরিয়াল টি বেসিক থেকে শুরু করে অ্যাডভান্স পর্যন্ত সকলের জন্যই থাকবে।

বিজ্ঞাপন

কিভাবে ইউটিউব ভিডিও এস ই ও করবেন এবং ভিউ বাড়াবেন।

আর কথা বাড়াবো না আসুন মূল আলোচনায় আসা যাকঃ-

মেটা টাইটেল, ডেস্ক্রিপশন এবং ট্যাগঃ-

এখন অনেকেই বলবেন যে আমি তো এগুলি করি কিন্তু তবুও বাড়ে না। এস ই ও একদিনের জন্য না যত দিন চ্যানেল ততদিন এস ই ও থাকবে এইটাই বাস্তব। আপনি দুইটি ভিডিও তে এস ই ও করবেন আর বাকি গুলি করবেন না আবার সব গুলিতেই এস ই ও করবেন মানে টাইটেল ডেস্ক্রিপশন দিবেন কিন্তু রিসার্স করবেন না তাহলে লাভের অংশে ফাকা ছাড়া আর কিছুই জুটবে না। যাই হোক
কিভাবে মেটা টাইটেল দিতে হয়ঃ-
ধরুন আপনি একটি ভিডিও তৈরী করেছেন ওয়েবডিজাইন সম্পর্কে। এখন টাইটেল টা কিভাবে সাজাবেন। আপনি বিভিন্ন কিওয়ার্ড রিসার্চার টুল দিয়ে কাজ করতে পারেন চাইলে Keywordspy অথবা small keyword tooll এর মাধ্যমে সার্চ করতে পারেন তাহলে বেশ উপকার পাবেন। কারন এর মাধ্যমে আপনি এর সার্চ ভ্যালু এবং সিপিসি সম্পর্কে জানতে পারবেন। আচ্চা এবার ধরুন আপনি ওয়েবডিজাইনের ট্রানজিশন ইফেক্ট নিয়ে ভিডিওতে আলোচনা করেছেন এবার নিজেই একটি টাইটেল সাজান। প্রথমে কিওয়ার্ড রিসার্চ ছাড়া টাইটেল সাজিয়ে নিন। এবার রিসার্চ শুরু করুন আপনার এখানে Transition effects কে টার্গেট করবেন কারন আপনার ভিডিও এর মূল উদ্দেশ্য হল Transition effects শেখানো।
আচ্ছা এই বার রিসার্চ করে পেলেন যে এইটার সার্চ ভ্যলু সবচেয়ে ভালো এবং সিপিসি অনেক বেশি। তাহলে এবার আপনার টাইটেল কে এই কিওয়ার্ড দিয়ে সাজিয়ে ফেলুন।

Suppose: Web Design Most Popular Transition effects 2016

এখানে ২০১৬ দেওয়ার কারন হল আপনি জানেন যে অনেকেই আপডেট ভিডিও চায়। যখন ভিউয়ার ২০১৬ লেখাটি দেখবে তখন এটিকে আপডেট ভিডিও ভেবে ভিউ করবে। কারন ইউটিউবে অনেক আগের ভিডিও গুলি র‌্যাংকে দেখায়। আপনি নিজেও পূরাতন ভিডিও দেখতে চাইবেন না কাজেই এটি বেশ প্রভাবে ফেলবে।

কিভাবে মেটা ডেস্ক্রিপশন দিতে হয়ঃ-
এখানে আমরা একটু ট্রিক্স করব। কোনো সমস্যা নেই। ট্রিক্সটি আপনার চ্যানেলে কোনো খারাপ প্রভাব ফেলবে না। আপনারা যারা ভিডিওতে টাইটেল ব্যবহার করেন তারা কখনই টাইটেলের সাথে বাংলা টিউটোরিয়াল লিখবেন না। এতে অন্য লেংগুয়েজ এর ভিউয়ার আপনার ভিডিও দেখবে না বা আগ্রহী হবে না। ১৫ কোটি লোকের চেয়ে ৬৮৫ কোটি লোক অনেক বড়। আমি বলছি না যে বাঙ্গালীকে ঠকান। আমি চাই আপনারা পুরো ইউটিউব ভিউয়ারকেই টার্গেট করুন। আপনার মেটা ডেস্ক্রিপশনে কিছু লিখুন অর্থ্যাত আপনি ভিডিও তে যা দেখিয়েছেন তার কিছু বর্ননা দিন। ডিভিডি কেনার সময় এর মোড়কে কিছু লেখা নিশ্চই দেখেছেন। সেখানে ভালো ভাবে লক্ষ্য করলে দেখবেন ভিডিও টিতে যা যা আছে তা সুন্দর ভাবে লিখে দেওয়া আছে এবং সেগুলি বেশ মার্জিত ভাষায় লেখা। এরকম কিছুটা লিখে এবার নিচের নিয়মটি ফলো করে কয়েকটি লাইন লিখুন
1. WEB DESIGN MOST POPULAR TRANSITION EFFECTS BANGLA TUTORIAL 2016
2. WEB DESIGN MOST POPULAR TRANSITION EFFECTS ENGLISH TUTORIAL 2016
3. WEB DESIGN MOST POPULAR TRANSITION EFFECTS URDU TUTORIAL 2016
4. WEB DESIGN MOST POPULAR TRANSITION EFFECTS Hindi TUTORIAL 2016
5. WEB DESIGN MOST POPULAR TRANSITION EFFECTS SPANISH TUTORIAL 2016
একটু বড় হাতের লিখবেন এতে রোবট আপনার লেখাগুলিকে হাইলাইট করবে। ফলে এর উপর যত সার্চ ভ্যালু আছে সেগুলিতে আপনার ভিডিও শো করবে।
অনেকেই এটি আগে থেকেই জানেন। তাদের জন্য বলব চালিয়ে যান আর এগুলি লেখার পূর্বে আপনি আরো যে ডেস্ক্রিপশন দিয়েছেন সেগুলিতে ২-৩ বার মেইন কিওয়ার্ডকে উল্লেখ করবে আর কমপক্ষে ২০০ শব্দের ডেস্ক্রিপশন দিবেন ৩০০ হলে সবচেয়ে ভালো হয়। কারন এটি আপনার পরবর্তিতে কাজে লাগবে। সেটিও আমি বলব। তবে ইন্টার্নাল গুলি শেষ করে।
মেটা কিওয়ার্ড/ট্যাগঃ
টাইটেল ডেস্ক্রিপশন শেষে আপনাকে ট্যাগ দিতে হবে যা খুব খুব জরুরী। রোবট কিন্তু ট্যাগকে Most priority দেয়। কাজেই আপনি টাইটেলে এবং ডেস্ক্রিপশনে যে মেইন কিওয়ার্ডটি দিয়েছেন সেটিকে টার্গেট করে ট্যাগ দিন। এখানে একটি কাজ করতে পারেন আপনার টাইটেলের প্রতিটি শব্দ কে ভেঙে ভেঙে ব্যবহার করতে পারেন। যেমনঃ WEB Design, Most Popular, Transition effects, 2016, আবার একত্রে দিন Webdesign Most popular Transition effects 2016, এবার গুগল ট্রান্সলেটরে গিয়ে পুরো টাইটেলকে কপি করে উর্দু হিন্দি এবং স্প্যানিশে ট্রান্সলেট করে ট্যাগ এ দিতে আপনি চাইলে এইগুলি মেটা ডেস্ক্রিপশনে দিতে পারেন। আশা করি ব্যপারটি ভালোভাবে বুঝেছেন।
যারা বেসিক জানতেন তাদের অনেক্ষন বিরক্ত করলাম। এবার অ্যাডভান্সদের পালা। বেসিকরা দেখতে পারেন। সমস্যা নেই।

মেটা ডেস্ক্রিপশনকে কাজে লাগানঃ-
অনেক কস্ট করে মেটা ডেস্ক্রিপশন লিখেছেন। সেটি শুধু এক জায়গায় দিবেন তা তো হবে না। আপনি বাংলাদেশে যত ব্লগ সাইট আছে সেগুলিতে শেয়ার করুন। কিন্তু তাতে তো টাইটেল এবং ডেস্ক্রিপশন লাগবে। আপনাকে আর কস্ট করে বানিয়ে বানিয়ে ডেস্ক্রিপশন লিখতে হবে না আপনি মেটা ডেস্ক্রিপশনে যা যা দিয়েছে তাই বাংলায় দিন। আমি ২০০ শব্দ বলেছিলাম অনেকেই ৩০০ শব্দ দিয়েছেন। কোনো সমস্যা নেই এবার আপনার সেই ডেস্ক্রিপশনটাকে বাংলায় লিখুন আর ৫-৬ টি সাইটে অথবা তারও বেশি সাইটে ডেস্ক্রিপশন সহ ভিডিও দিন। এতে সাইটের অ্যাডমিনের কোনো সমস্যা থাকবে না। কারন আপনার ডেস্ক্রিপশন তো আছেই। কিন্তু কোনো লিংক শেয়ার করবেন না। শুধু ভিডিওটি এম্বেড করে দিন। এতে করে উনার সাইটের বাউন্স রেট ও ঠিক থাকবে সাথে আপনার ভিউও পেয়ে যাবেন। আপনার ভিডিওতে অ্যাডভান্স মনেটাইজেশন থাকলে সেখানেই বার বার অ্যাড শো করবে তাই ইনকাম নিয়ে চিন্তা নেই।
অ্যানোটেশন বা কার্ড দিনঃ-
ভুলেও এই কাজটি বাদ দিবেন না। প্রত্যেকটি ভিডিও তে অ্যানোটেশন দিন। পূর্বের ভিডিও এর সাথে আপডেট ভিডিও এর লিঙ্ক দিন এতে আপনি যদি ব্লগ সাইট গুলিতে শেয়ার করেন তাহলে মানুষ ভিডিও এর সাথে সেই কার্ড বা অ্যানোটেশন গুলি দেখে ক্লিক করে আপনার চ্যানেলে চলে আসবে এবং আরো ভিডিও দেখার সূযোগ পাবে। অ্যানোটেশনগুলি ভালো ভাবে দিন অর্থ্যাৎ এর টাইটেলে এমন কিছু শব্দ ব্যবহার করুন যা ভিউয়ার ক্লিক করতে আকৃষ্ট করে।
সোস্যাল শেয়ারঃ-
আপনারা যারা ব্লগিং করেছেন তারা হয়ত জানেন যে গুগল প্লাসে কিছু শেয়ার করা মাত্রই কমপক্ষে ২০-৩০ টি লেখা ভিউ হয়ে যায় ৫-৬ মিনিটে কাজেই গুগল প্লাসের বিভিন্ন বড় বড় কমিউনিটিতে জয়েন করুন। রিলেটেড গুলিতে জয়েন করবেন নাহলে স্প্যামিং ধরতে পারে। আর যদি আপনার নিজস্ব কমিউনিটি থাকে তাহলে তো কথাই নেই। নিজের কমিউনিটি চ্যানেলের নামের সাথে মিল রেখে তৈরী করুন। এবার ফেইসবুকে শেয়ার করুন গ্রুপে অথবা পেইজে। আপনার নিজস্ব গ্রুপ থাকলে বেশ ভালো আর না হলে সেইফ গ্রুপে শেয়ার করুন পারলে নিজের পেইজে শেয়ার করুন।
নিজের ব্লগ সাইট খুল:-
আপনি চাইলে ব্লগার অথবা ওয়ার্ডপ্রেস বা জুমলা এই ফ্রি ব্লগ গুলিতে ফ্রি তে অ্যাকাউন্ট খুলে নিয়মিত ভিডিও গুলি আপডেট হওয়ার পর ডেস্ক্রিপশন সহ শেয়ার করুন তাহলে গুগল থেকে ভিজিটর পাবেন। যেটা ভিডিও এর মান বাড়াতে বাধ্য।

Adsense & SEO

তো এই ছিল আনপেইড এস ই ও এর কিছু অংশ। সামনে আরো কিছু যোগ করব এর সাথে। আপনার ব্যস্ততা আমকে এতটুকু লিখতে আগ্রহী করেছে। আশার করি ২ লাইন হলেও উপকার করতে পেরেছি আর যারা আরো জানেন তাদের বলব আপনারা আমাদের শেখান। শিখতে চাই। চির কৃতজ্ঞ থাকব কথা দিলাম 🙂 🙂 🙂

Ads by rwc
বিজ্ঞাপন

নির্বাচিত টিপস মনোনয়ন

0

টিপসটি কি উপভোগ করেছেন?

এই টিপসের মতো এবং এরকম আরও ভালো মানের টিপসের জন্য ইমেইলের মাধ্যমে নিয়মিত আপডেট পেতে চাইলে TiPS4BLOG নিউজলেটারে সাবস্ক্রাইব করতে ভুলবেন না!

এছাড়াও আপনি পছন্দ করতে পারেন

এই টিপসের জন্য এখনো কোন মতামত দেওয়া হয় নাই

আপনার মতামত দিন

যদি আপনার কোন বক্তব্য থেকে থাকে অথবা আপনি কোন কিছু সুপারিশ করতে চান অথবা বোঝার ক্ষেত্রে কোন সমস্যা হয়, নিশ্চিন্তে নিচে মতামত দিতে পারেন। দয়া করে স্প্যামিং করবেন না এবং কোন বাজে ভাষা ব্যবহার করবেন না। আমরা আপনাদের কাছ থেকে অর্থবহ এবং গঠনমূলক মতামত আশা করি।


5 × এক =